আজ ৭ই ডিসেম্বর, ২০২২, বিকাল ৩:৫৭

দাগনভূঞায় দুই বীর মুক্তিযোদ্ধার ইন্তেকাল

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আবদুল্লাহ আল মামুন:

দাগনভূঞায় দুই বীর মুক্তিযোদ্ধা ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি..রাজিউন)। উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের সাপুয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ ভূঁঞা (৮৫) শুক্রবার রাতে বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ঢাকার সিএমএস হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। অপর জন উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের উত্তর জায়লস্কর গ্রামের সুবেদার সুলতান আহমেদ (১০০) বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নিজ বাড়িতে মারা যান।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ ভূঁঞা উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের সাপুয়া গ্রামের কুতুব উদ্দিন ভূঁঞা বাড়ির মৃত মোবারক আলী ভূঞার ছেলে। মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ মৃত্যুকালে ৩ ছেলে, দুই মেয়ে ও স্ত্রী রেখে যান। বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবেদার সুলতান আহমেদ উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের উত্তর জায়লস্কর গ্রামের তাকিয়া বাড়ির মৃত ইন্তু মিয়ার ছেলে। মুক্তিযোদ্ধা সুবেদার সুলতান আহমেদ মৃত্যুকালে ২ ছেলে ও ৪ মেয়ে রেখে যান।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) বেলা সকাল ১১টার দিকে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ ভূঁঞা ও সুবেদার সুলতান আহমেদকে শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর ২ টায় তাঁকে গার্ড অফ অনার প্রদান করে দাগনভূঞা উপজেলা প্রশাসন। পরে মরহুম আবদুল লতিফ ভূঁঞা ও সুবেদার সুলতান আহমেদের নামাজে জানাযা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় নিজ নিজ গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে তাদের দাফন সম্পন্ন হয়।

গার্ড অফ অনার প্রদানের সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা আক্তার তানিয়া, ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ মিলন, মুক্তিযোদ্ধা প্রতিনিধি বীর মুক্তিযোদ্ধা পেয়ার আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড সংসদের সভাপতি আজিম সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক বিমল ক্রান্তি ভৌমিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। দুই বীর মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুতে দাগনভূঞা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দিদারুল কবীর রতন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা আক্তার তানিয়া গভীর শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আরো পড়ুন

সর্বশেষ খবর

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১