আজ ১৮ই জুলাই, ২০২৪, রাত ১০:১৬

চৌদ্দগ্রামে স্ত্রীকে হত্যা করে লাশ শশুর বাড়িতে রেখে স্বামী উধাও,চট্রগ্রাম থেকে আটক

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

চৌদ্দগ্রামে স্ত্রীকে হত্যা করে লাশ শশুর বাড়িতে রেখে স্বামী উধাও,চট্রগ্রাম থেকে আট

নেকবর হোসেন কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে জান্নাতুল ফেরদৌস টুম্পা (২৫) নামে এক গৃহবধুকে স্বামীর বাড়িতে হত্যা করে কৌশলে লাশ শশুড়বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে স্বামী উধাও হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ রাতেই স্বামী মোঃ সাইফুল ইসলাকে চট্রগ্রাম থেকে আটক করেছে। গৃহবধু উপজেলার জগন্নাথদিঘি ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামের কাজি শফিকুর রহমানের মেয়ে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রোববার সকালে মর্গে প্রেরণ করেন।
তথ্যটি রোববার দুপুরে নিশ্চিত করেছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা।

গৃহবধুর বাবা কাজি শফিকুর রহমান বলেন,জান্নাতুল ফেরদৌস টুম্পার স্বামী গত ২৮ জুলাই বৃহস্পতিবার বাহারাইন থেকে দেশে আসে। এসময় টুম্পা আমাদের বাড়িতে অবস্থান করছিল। শনিবার দুপুরে স্বামী সাইফুল সহ দুপুরে খাবার খেয়ে একই ইউনিয়নের পাশবর্তি বড়পুষ্করনী গ্রামের নিজ বাড়িতে নিয়ে যায়। সন্ধার কিছু সময় আগে সাইফুল টুম্পাকে আমাদের বাড়ির সামনে একটি সিএনজি যোগে অচেতন অবস্থায় নিয়ে এসে বলে আপনাদের মেয়ে অসুস্থ্য তাকে হাসপাতালে নিতে হবে। আপনারা আমার সাথে আসেন। এসময় টুম্পার মা নাসিমা বেগম ও আমার এক নিটক আত্নীয় সহ তাকে নিয়ে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাঃ তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
শফিকুর রহমান আরো বলেন,ডাঃ টুম্পাকে মৃত ঘোষনা করলেও সাইফুল তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা নিবে বলে কৌশলে এ্যাম্বুলেন্সে তুলে লাশ আমাদের বাড়িতে নিয়ে আসে এবং ঘরে রেখে তিনি উধাও হয়ে যায়।
গৃহবধুর মা নাসিমা বেগম বলেন, আমরা কিছু বুঝে উঠার আগেই টুম্পার স্বামী সাইফুল আমার মেয়ের লাশ ঘরে রেখে উধাও হয়ে যায়। আমরা পরে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ দেখতে পাই। সাইফুল তার বাড়িতে নিয়ে আমার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে নির্যাতন করে হত্যা করেছে। তবে কি কারনে হত্যা করা হয়েছে তার বলতে পারেনি।

শনিবার দায়িত্বে থাকা চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের ডাঃ মোঃ সোলেমান বাদশা বলেন, গৃহবধুকে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের কালো চিহৃ রয়েছে। আমরা গৃহবধুকে মৃত ঘোষনা করলেও তার স্বামী সাইফুল ইসলাম আমাদের সাথে অসৌজন্যমুলক আচরন করে লাশ উন্নত কিচিৎসার কথা বলে এ্যাম্বুলেন্সে করে নিয়ে যায়।
চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, খবর পেয়ে রাতেই গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আমরা তার স্বামী সাইফুল ইসলামকে আটক করেছি। ধারনা করা হচ্ছে তিনি চট্রগ্রাম বিমান বন্দর দিয়ে বাহারাইন পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলো। গৃহবধুর মৃত্যুর কারন সম্পর্কে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আরো পড়ুন

সর্বশেষ খবর

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১