আজ ৬ই অক্টোবর, ২০২২, দুপুর ২:১৩

কুমিল্লায় সাড়া ফেলেছ বঙ্গবন্ধু ভ্রাম্যমাণ রেল জাদুঘর।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

কুমিল্লা প্রতিনিধি।

বঙ্গবন্ধুর জীবনের নানা দিক ভাষা আন্দোলন ৬ দফা ৬৯-এর গণআন্দোলন ৭০ এর নির্বাচন স্বাধীনতার ঘোষণা মুজিব নগর সরকার মুক্তিযুদ্ধ ও ১৬ ডিসেম্বরের বিজয়ের নানা ইতিহাস নিয়ে সাজানো হয়েছে বঙ্গবন্ধু রেল জাদুঘর।

শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত একটি বগিকে সুসজ্জিত করে জাদুঘরের রূপ দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ের উদ্যোগে প্রান্তিক পর্যায়ে বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবনগাঁথা ছড়িয়ে দিতে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ভ্রাম্যমাণ রেল জাদুঘরের সূচনা।


আগস্টের প্রথম দিন হতে দেশের নানা প্রান্তে যাচ্ছে রেলের দুইটি ভ্রাম্যমাণ যাদুঘর। সেই ধারাবাহিকতায় ২ সেপ্টেম্বর রাতে কুমিল্লা স্টেশনে আসে ভ্রাম্যমাণ এই রেলজাদুঘর। আসার পরই কুমিল্লা ব্যাপক সাড়া ফেলে এই জাদুঘর।

জাদুঘরটিতে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক জীবন মুক্তিযুদ্ধ জীবনকাল আর সংগ্রামী ইতিহাস সম্বলিত ভিডিও প্রর্দশন করা হচ্ছে অডিও সিস্টেমে সম্প্রচার করা হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ এতে বঙ্গবন্ধুর আদি পৈত্রিক বাড়ি ব্যবহৃত চশমা দলের প্রতীক নৌকাকেন্দ্রীয় শহীদ মিনারনবঙ্গবন্ধুর প্রিয় তামাক পাইপ আর প্রিয় মুজিব কোট। এছাড়া মুজিব শতবর্ষের লোগো বঙ্গবন্ধুর লেখা বই মুজিবনগর স্মৃতিস্তম্ভ পাকিস্তানিদের আত্মসমর্পণ জাতীয় স্মৃতিসৌধ বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধের রেপ্লিকাও রয়েছে।


এ জাদুঘরে ১৯২০-১৯৭৫ সাল পর্যন্ত ১২টি গ্যালারির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশের ইতিহাস তুলে ধরা হয়েছে। জাদুঘরে ১৯২০-১৯৭৫ সাল পর্যন্ত ১২টি গ্যালারির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশের ইতিহাস তুলে ধরা হয়েছে।

শীততাপ নিয়ন্ত্রিত জাদুঘরটিতে রয়েছে জয় বাংলা স্লোগানের আদলে তৈরি করা সৃজনশীল একটি বুক শেল্ফ যেখানে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীথ আমার দেখা নয়া চীনথসহ তার কর্মজীবনের ওপর রচিত গুরুত্বপূর্ণ বই রয়েছে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শেখ হাসিনার লেখা বই শেখ মুজিব আমার পিতা।‘জয় বাংলা বুক শেল্ফে ৮০-১০০টি বইয়ের মধ্যে রয়েছে শিশুদের জন্য বঙ্গবন্ধুর ওপর রচিত বিভিন্ন শিশুতোষ বই।

জাদুঘরটি কুমিল্লা স্টেশনে আসার পর হতেই নগরীর বিভিন্ন প্রান্ত হতে নানা বয়সী দর্শনার্থীরা এটি দেখতে আসেন দর্শনার্থীদের একজন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া তারেক জানান বঙ্গবন্ধু আমাদের জাতির পিতা ওনার জীবনাচরিত হতে আমাদের শেখার আছে অনেক কিছু। এই জাদুঘরের মাধ্যমে আমরা বঙ্গবন্ধুর জীবনের নানা দিক সম্পর্কে জানতে পারছি।

স্কুল শিক্ষিকা রাশেদা আক্তার জানান ইচ্ছা থাকলেও নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে জাদুঘরে যেয়ে বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সম্পর্কে জানা হয়ে উঠেনা কিন্তু ভ্রাম্যমাণ এই যাদুঘরের কারণে প্রান্তিক পর্যায়ে মানুষ এসব ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারছে জাদুঘরের তত্ত্বাবধানে থাকা রেলের এটেন্ডেন্ট সোহাগ আহমেদ আগস্টের ১ তারিখ হতে চট্টগ্রাম থেকে এই জাদুঘর যাত্রা শুরু করে পাহাড়তলী রেলস্টেশন সীতাকুন্ড
ফেনী রেলস্টেশন লাকসাম মাইজদী নোয়াখালী চৌমুহনী এবং চাঁদপুর ঘুরে জাদুঘরটি কুমিল্লায় আসে কুমিল্লার পর এটির প্রর্দশনী আখাউড়ায় যাবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর অবদান সম্পর্কে প্রান্তিক পর্যায়ের মানুষকে জানানোর জন্য রেলের এই উদ্যোগ।

উল্লেখ্য ২৭ এপ্রিল দুপুরে রাজধানীর কমলাপুর রেল স্টেশনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ভ্রাম্যমাণ রেল জাদুঘর উদ্বোধন করা হয় গণভবন থেকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে
ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে এ জাদুঘর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মাসে ১ আগস্ট থেকে যাত্রা শুরু হয়েছে এই জাদুঘরের। যা দেশের বিভিন্ন স্টেশনে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আরো পড়ুন

সর্বশেষ খবর

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১